Golden Cauldron Logo

SHORT STORIES

Ex 1

SHORT STORY

রাক্ষস


by

উন্নত্তির শিখরে পৌঁছে গিয়ে মানুষ যখন নিজের বুদ্ধি বিবেকের বিসর্জন দেয় তখনই শুরু হয় সর্বনাশের। আকাশের ক্ষেত্রেও সেটাই হল! কোথায় সেই ভ্যালেন্টাইন্স্ ডে, কোথায় কী? দেখতাম যে, রোজ রাতে মদ খেয়ে টলতে টলতে বাড়ি ঢোকে আকাশ, শুরু হয় অকথ্য ভাষায় গালাগালি। ক্রমে মারধোরের পর্যায় চলে যায় সেটা।

Read more

Ex 1

SHORT STORY

একতান


by

এই অন্ধকার সময়ে যখন হিংসা-বিদ্বেষ-ঘৃণা সহজাত ঐক্য ও স্নেহময়তাকে গ্রাস করতে চায়, সেখানে দাঁড়িয়ে এক 'মধুদাদা' ছোট্ট রিনিকে শেখায়, "কিছুই আলাদা নয়, সবই এক। সবাই এক।" সেখানেই এই গল্পের জন্ম।

Read more

Ex 1

SHORT STORY

বিশ্বাসে মেলায় বস্তুু


by

শাড়ীর প্রতি বরাবরই আমার আগ্রহ কম কিন্তু কাঁচের বাস্কের মধ্যে সযত্নে রাখা ১৫-২০ বছরের পুরোনো সেই শাড়ীটা দেখে যেন চমকে উঠলাম। বটল্ গ্রীন রঙের বালুচরী। বেশ পুরোনো হলেও আঁচলে মুগার নকশাগুলি বেশ স্পষ্ট! বোনা রয়েছে বিষ্ণুপুরের পাথর দরজা, তার একটু দূরেই একজন মানুষ কামান দাগছে। আরও এক পা এগিয়ে গেলাম, এইবার মানুষটিকে চিনতে খুব বেশী কষ্ট করতে হল না। স্পষ্ট দেখলাম তার মাথার মুকুটে শিখিপাখা গাঁথা। ঠিক দেখছি তো? শ্রীকৃষ্ণ কামান দাগছে! এও হয়?

Read more

Ex 1

SHORT STORY

এপিঠ ওপিঠ


by

হেমন্ত থেকে শীতের উত্তরণটা বেশ খানিকটা নরমে গরমেই হয়। কেমন যেন এক বিপরীতার্থক দ্বন্দ্ব সমাস। আট থেকে আশি এইসময় একদিকে লেপ, কম্বল, শীতের পোশাক আর একদিকে পাখার সঙ্গে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানের আপ্রাণ চেষ্টা করে। আগুনের তাত নিতে নিতে শীত শেষ অবধি হয়তো জীবনের নিরন্তর চলনকেই ব্যাখ্যা করে- রংবেরঙের দিন, ভালো মন্দের দ্বন্দ্ব।

Read more

Ex 1

SHORT STORY

Panchami Pangs


by

The story delineates my personal experience with one sudden anxiety attack against the backdrop of the Panchami night of Pujo 2k19. I want to reach out to my friends who are on the same boat with me through this literary piece about my take on an important issue which can't be ignored at all in today's World running a rat-race always., and to convey my love and heartiest wishes to them.Take your time, heal and rise up again by joining the broken pieces!

Read more

Ex 1

SHORT STORY

আশ্বিনের এক শারদপ্রাতের আখ্যান


by

দেখতে দেখতে ছয় মাস কেটে গেল! করোনার মত ভয়াবহ মহামারীর সাথে এখনও সমানতালে যুঝে চলেছে মহানগরী কলকাতা! এরই মাঝে কখন যে বাঙালির প্রানাপেক্ষা প্রিয় দুর্গোৎসবের সূচনাতিথি মহালয়া এসে উপস্থিত হলো, তা হয়ত কেউই সেরম ভাবে উপলব্ধি করতে পারেনি এই অভিশপ্ত বছরে! বিভিন্ন দোটানার মধ্যে পড়ে জনজীবন প্রায় যখন বিধ্বস্ত, তখনই দেবী দুর্গতিনাশিনীর মর্তে আবাহনের সংবাদ সকল মানব - হৃদয়ে হয়ত অনেকখানি আশার সঞ্চারণে সক্ষম হয়েছে! এই পরিস্থিতিতে কয়েক মুহূর্তের স্বস্তি প্রদানের উদ্দেশ্য নিয়ে আমি আমার আগের বছরের একটু অন্যরূপে মহালয়া উদযাপনের কাহিনী আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চাইলাম! আশা করি পাঠক বন্ধুরা পড়ে আনন্দ পাবেন ও আমার পুজোসন্মন্ধীয় আবেগের সাথে একমত হতে পারবেন।

Read more